দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর ইমামের পরকীয়ায় প্রাণ গেল বিধবার - দক্ষিণ বাংলা ইমামের পরকীয়ায় প্রাণ গেল বিধবার - দক্ষিণ বাংলা
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩৪ অপরাহ্ন

ইমামের পরকীয়ায় প্রাণ গেল বিধবার

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিতঃ সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১
  • ১৮৮ জন নিউজটি পড়েছেন
'অ্যাসিড পানে' গৃহবধূর আত্মহত্যা

ঢাকার ধামরাইয়ে মসজিদের ইমামের সঙ্গে পরকীয়ায় প্রতারিত হয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিন সন্তানের জননী এক বিধবা নারী। ওই ইমামের নাম আশরাফুল ইসলাম। তার বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলায়।

পূর্ব শর্তানুযায়ী ওই ইমাম বিয়ে না করায় ওই বিধবা নারী শনিবার সকালে বিষপানে আত্মহত্যা করেন। পুলিশ ওই লাশটি উদ্ধার ও ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

অপরদিকে মোটা অংকের উৎকোচ নিয়ে পুলিশকে না জানিয়ে লাশ দাফন ও সুয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের দফাদার মো. আব্দুর রহিমের হেফাজত থেকে ধর্ষককে ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় মাতবর ও মসজিদ কমিটির সদস্যদের বিরুদ্ধে। পরে ওই ইমাম ও মাতবররা আত্মগোপন করেছেন বলে জানা গেছে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সুয়াপুর ইউনিয়নের রৌহারটেক গ্রামে। এ নিয়ে এলাকা বেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে।

এলাকাবাসী জানান, রৌহারেটেক মসজিদের ইমাম মো. আশরাফুল ইসলাম উক্ত গ্রামের তিন সন্তানের জননী এক বিধবা নারীকে বিয়ের বিয়ের আশ্বাস দিয়ে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। বিষয়টি জানাজানি হলে গ্রামবাসী ওই বিধবাকে নানাভাবে ধিক্কার ও অপবাদ দিতে থাকেন। ফলে তিনি নিরুপায় হয়ে বৃহস্পতিবার বাদ জোহর মসজিদে গিয়ে উপস্থিত মুসল্লিদের সামনে বিয়ের জন্য ইমামকে চাপ দেন।

এতে ওই ইমাম ক্ষিপ্ত ওই বিধবাকে মারধর করে মসজিদ থেকে বের করে দেন। এরপর তিনি গ্রামের মাতবরদের কাছে গিয়ে বিচার প্রার্থনা করেন ওই মসজিদের ইমাম আশরাফুল ইসলামের বিরুদ্ধে। মাতবররা মসজিদের ইমামের কাছ থেকে মোটা অংকের উৎকোচ হাতিয়ে নিয়ে শনিবার সকালে প্রহসনের এক সালিশি বৈঠকে বসেন।

এ প্রহসনের সালিশি বৈঠকে কোনো কথা না শুনেই সালিশকারীরা ওই বিধবাকে দোষী সাব্যস্ত করে কলঙ্কিনী বলে অপবাদ দেন। ফলে তিনি বিচার না পেয়ে রাগে ক্ষোভে অভিমানে বাড়িতে গিয়ে বিষপানে আত্মহত্যা করেন।

এ ঘটনায় থানা পুলিশকে না জানিয়ে তড়িঘড়ি করে ওই বিধবার লাশ দাফনের চেষ্টা করে ওই সালিশকারী মাতবররা। খবর পেয়ে গ্রামের প্রতিবাদী লোকজন ছুটে এসে মসজিদের ইমাম মো. আশরাফুল ইসলামকে আটক করে সুয়াপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. হাফিজুর রহমান সোহরাবকে অবহিত করেন। তিনি সঙ্গে সঙ্গে দফাদার মো. আব্দুর রহিমকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে লাশ দাফনে বাধা দেন।

উপস্থিত গ্রামবাসী থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করার জন্য দফাদারের কাছে ধর্ষক ওই ইমামকে হস্তান্তর করেন। পরে পথিমধ্যে ব্যারিকেড দিয়ে ওই ইমামকে ছিনিয়ে নেয় কয়েকজন।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই বিধবার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রোববার সকালে রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। রোববার সকালে এ ব্যাপারে ধামরাই থানার এসআই আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলা দায়ের করেন।

দফাদার আব্দুর রহিম বলেন, চেয়ারম্যান স্যার আমাকে ঘটনাস্থলে পাঠান। ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রথমে লাশ দাফনে বাধা দেই। এরপর থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করি। গ্রামবাসী থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করার জন্য ধর্ষক ওই ইমামকে আমার কাছে হস্তান্তর করেন। পরে মসজিদ কমিটির সদস্য ও কতিপয় রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে আমার কাছ থেকে ইমামকে ছিনিয়ে নেয়।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. হাফিজুর রহমান সোহরাব বলেন, এলাকাবাসী আমাকে বিষয়টি জানালে আমি সঙ্গে সঙ্গে দফাদার আব্দুর রহিমকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে লাশ দাফনে বাধা দেই। এলাকাবাসী ধর্ষক ওই ইমামকে দফাদারের কাছে হস্তান্তর করে থানা পুলিশে সোপর্দ করার জন্য। কতিপয় লোকজন রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে ধর্ষক ওই ইমামকে ছিনিয়ে নেয়।

ধামরাই থানার ওসি মো. আতিকুর রহমান আতিক বলেন, পরকীয়ায় প্রতারিত হয়ে আত্মহত্যাকারী ওই বিধবা নারীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ধামরাই থানায় হত্যা প্ররোচনার একটি মামলা হয়েছে।

দক্ষিণ বাংলা ডটকম এর জন্য সারাদেশে সংবাদ দাতা নিয়োগ চলছে
যোগাযোগঃ- ০১৭১১১০২৪৭২, news@dokhinbangla.com




এই ক্যাটাগরির আর নিউজ




Salat Times

    Dhaka, Bangladesh
    বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৩২
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৭
    যোহরদুপুর ১১:৫১
    আছরবিকাল ৩:১৭
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৫৫
    এশা রাত ৭:১০




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দক্ষিণ বাংলা:-2018-2021
সারাদেশের সংবাদ দাতা নিয়োগ চলছে ০১৭১১১০২৪৭২
themesba-lates1749691102
বাংলা English