উজিরপুরে জমি বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত-৩

উজিরপুর প্রতিনিধি
দক্ষিণ বাংলা সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১
উজিরপুরে জমি বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত-৩

বরিশালের উজিরপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা নারীসহ ৩ জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ৭৫ বছরের এক অসহায় নারীর ভোগদখলীয় পুকুরে সেচ পাম্প বসিয়ে মাছ লুট ও হামলা চালিয়ে জমি দখলের পায়তারা চালাচ্ছে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ ও ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা যায় উপজেলার শোলক ইউনিয়নের দক্ষিন ধামুরা গ্রামের মৃত আঃ মালেক হাওলাদারের স্ত্রী নুরজাহান বেগম(৭৫) এর জমি নিয়ে একই গ্রামের দেলোয়ার হোসেন মল্লিকের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় ৯ জানুয়ারী দুপুর আড়াইটায় অসহায় নারীর ভোগদখলীয় জমি দখল করার জন্য তাদের পুকুরে সেচপাম্প বসিয়ে মাছ লুট ও জমি দখলের পায়তারা চালায় একই গ্রামের প্রভাবশালী দেলোয়ার হোসেন মল্লিক ও তার স্ত্রী বকুল বেগম,ছেলে স্বপন মল্লিক, ইউসুফ মল্লিক,সজল মল্লিক,নিকট আত্মীয় মধু ঢালী। এর প্রতিবাদ করলে নুরজাহান বেগম ও তার নাতি গোলাম রাব্বি তানভীর,নিকট আত্মীয় দিনইসলামকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয়রা উজিরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের ভর্তি করেছে। ভুক্তভোগী বৃদ্ধা নুরজাহান বেগম জানান আমার এই পৃথিবীতে কোন বান্ধব নেই, আমার স্বামী, ছেলে,মেয়ে নেই। আমি অসহায় হওয়ায় ওই প্রভাবশালী ভূমিদস্যুরা আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়ে আমার শেষ সম্বল ভিটে-মাটি দখলের পায়তারা চালায়। এছাড়াও উগ্র মেজাজী বকুল বেগম রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে এলাকার সকলকে বাধা দেয় এবং বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকী দেয়। তাদের হুমকীর মুখে দিশেহারা এলাকাবাসী। এমনকি তাদের ভয়ে মুখ খুলছেনা সাধারনরা। অন্যের জমি দখল করা তাদের নেশা পেশা। তিনি আরো বলেন আমাদের কুপিয়ে ও পিটিয়ে যখম করেছে তারা। এঘটনা ধামাচাপা দিতে উল্টো নাটক সাজিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে আমাদেরকে ফাসাতে চায়। অভিযুক্তরা বিষয়টি এড়িয়ে যায়। এ ঘটনায় উজিরপুর মডেল থানায় উল্লেখ্য অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন বৃদ্ধা নুরজাহান বেগম। অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়াউল আহসান জানান উভয় পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ওই ভূমিদস্যু হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবী জানিয়ে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন অসহায় পরিবার।


আরো নিউজ