গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে টেন্ডার আহবানে অনিয়মের অভিযোগ

বরিশাল প্রতিনিধি
দক্ষিণ বাংলা মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২১
গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে টেন্ডার আহবানে অনিয়মের অভিযোগ

গণপূর্ত দপ্তরের বরিশালের নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে নিয়ম বহির্ভুতভাবে টেন্ডার আহবানের অভিযোগ উঠেছে। পছন্দের ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দেয়ার উদ্দেশ্যে টেন্ডার আহবানের মাত্র ১৮ ঘন্টার মধ্যে তা বন্ধ করে দিয়েছেন নির্বাহী প্রকৌশলী জেরাল্ড অলিভার গুডা। এতে করে সাধারন ঠিকাদাররা টেন্ডারে অংশগ্রহন করতে পারেননি বলে জানা গেছে।

বরিশাল গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশল কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবন মেরামতের জন্য গত ১০ জানুয়ারী বিকাল ৩ টা ১৫ মিনিটে অনলাইনের মাধ্যমে দরপত্র আহবান করা হয়। যার এপিপি আইডি নম্বর ১৬৭১৯৭ ও টেন্ডার আইডি নম্বর ৫৩৫৮৫৬। মাত্র ১৮ ঘন্টার ব্যবধানে ১১ জানুয়ারী সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটে টেন্ডার সিকিউরিটি জমা দেয়ার শেষ সময় নির্ধারন করা হয়। ফলে নির্ধারীত সময়ের মধ্যে মাত্র তিনটি দরপত্র জমা হয়। দরপত্র জমা দিতে ব্যর্থ হওয়া একাধীক ঠিকাদার জানান, পিপিআর এর নিয়ম অনুযায়ী টেন্ডার আহবানের পর দরপত্র জমা দেয়ার শেষ সময় কমপক্ষে তিনদিন হতে হবে। সেই সাথে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তিও দিতে হবে। কিন্তু এ টেন্ডারের ক্ষেত্রে তার কিছুই মানা হয়নি। যাতে সাধারন ঠিকাদাররা টেন্ডারে অংশগ্রহন করতে না পারে সেজন্য দরপত্র জমাদানের সুযোগ দেয়া হয় মাত্র ১৮ ঘন্টা। তাও আবার পরের দিন ব্যাংক খোলার আগেই দরপত্র জামা দানের শেষ সময় নির্ধারন করা হয়। অথচ একই দিনে আহবানকৃত আরো বেশ কয়েকটি কাজের দরপত্র জমা দেয়ার শেষ সময় রাখা হয়েছে আগামী ১৯ জানুয়ারী। ঠিকাদাররা আরো অভিযোগ করেন, নির্বাহী প্রকৌশলী জেরাল্ড অলিভার গুডা তার পছন্দের ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দেয়ার জন্যই নিয়ম বহির্ভুতভাবে বিকাল ৩ টার পরে দরপত্র আহবান করেন। যাতে কেউ পে-অর্ডার কাটতে না পারে সেজন্যই এ ব্যবস্থা করা হয়েছে। কেননা বিশেষ ব্যক্তি ছাড়া কোন ব্যাংক দুপুর আড়াইটার পরে লেনদেন করেনা। তাই মাত্র তিনিটি দরপত্র জমা পড়েছে ৮ লাখ টাকার এই কাজটির জন্য।

অন্যদিকে টেন্ডার লটারি ঠিকাদারদের উপস্থিতিতে করার নিয়ম থাকলেও তা কখনই হয়নি এ কার্যালয়ে। এমনকি দরপত্র জমাদানের পর ননরেসপনসিব করে পছন্দসই ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দেয়ার সুয়োগ করে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে এই নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে। এছাড়া একই অফিসের স্টিমিটার মুজাহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধেও অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। টেন্ডার প্রক্রিয়ায় ব্যাপক প্রতিযোগীতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ওটিম পদ্বতিতে দরপত্র আহবান করা হয়। কিন্তু মুজাহিদ অনুমোদিত দরপত্রের মুল্য পছন্দের ঠিকাদারকে প্রদান করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তাছাড়া নির্দিষ্ট ঠিকাদারদের দিয়ে বিভিন্ন দপ্তরের অগ্রিম কাজ করানো বরিশাল গনপূর্ত বিভাগের একটি নিয়মে পরিনত হয়েছে। এব্যাপারে নির্বাহী প্রকেীশলী জেরাল্ড অলিভার গুডাকে ফোন করা হলেও তার কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে দপ্তরটির বরিশাল বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ নাছিম খান বলেন, পিপিআর এর নিয়ম অনুযায়ী টেন্ডার আহবানের পর জমা দানের জন্য কমপক্ষে তিন দিন সময় দিতে হবে। কোনভাবেই এর কম সময় দেয়ার সুযোগ নেই।


আরো নিউজ