দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর গোপালগঞ্জে পিতা ও পূত্রের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ - দক্ষিণ বাংলা গোপালগঞ্জে পিতা ও পূত্রের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ - দক্ষিণ বাংলা
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জে পিতা ও পূত্রের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

শাহীন মুন্সী, গোপালগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিতঃ সোমবার, ৪ অক্টোবর, ২০২১
গোপালগঞ্জে পিতা ও পূত্রের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

পিতা সন্তোষ কুমার বিশ্বাস, সদস্য জেলা পরিষদ গোপালগঞ্জ। পূত্র সুকান্ত বিশ্বাস চেয়ারম্যান,২নং বৌলতলী ইউনিয়ন পরিষদ, গোপালগঞ্জ সদর। পিতা ও পূত্র জেলা পরিষদের সদস্য ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব গ্ৰহনের পর থেকেই ব্যপক অনিয়ম ও দুর্নীতি করার মৌখিক অভিযোগ ও এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যপক ক্ষোভ থাকলেও প্রভাবশালী এই পিতা পূত্রের অনিয়মের বিষয়ে প্রকাশ্যে কেউই মুখ খোলেনি।

গত ৩০/০৬/২০২১ইং তারিখে সেই অবিশ্বাস্য কাজটি করেছে বৌলতলী ইউনিয়নের একদল সাধারন মানুষ। গোপালগঞ্জের সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর পিতা পূত্রের ব্যপক অনিয়ম ও দুর্নীতির সুনিদৃষ্ট ১৫টি ফিরিস্তি তুলে ধরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে ন্যায় বিচার দাবী করেছেন। ১৫টি ফিরিস্তির মধ্যে মন্দির ও স্মশান উন্নয়নের বরাদ্দের টাকাও লুটপাট করার অভিযোগ রয়েছে। অপরদিকে বৌলতলী কাঁচা বাজারের এক টি মন্দিরকে অভিনব কায়দায় একবার কালীমন্দির ও একবার হরিমন্দির দেখিয়ে বিভিন্ন খাতে বরাদ্দ এনে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী।

জানাযায়, সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার রাশেদুর রহমান লিখিত অভিযোগটির সত্যতা যাচাইয়ের জন্য উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ সেকেন্দার শেখ কে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে।
এবিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ সেকেন্দার শেখ আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন, আমি তদন্ত করেছি, অভিযোগের অনেক সত্যতা রয়েছে, আবার দুই একটা প্রকল্পে অভিযুক্তদের সম্পিক্ততা নেই। তদন্তের স্বাথে এবিষয়ে বেশি কিছু বলতে পারছিনা। তদন্ত রিপোর্টে বিস্তারিত থাকবে।

এলাকাবাসীর লিখিত অভিযোগের ভাষা ছিল এমন। জনাব, আমরা নিম্নস্বাক্ষরকারীগণ আপনার নিকট এক অভিযোগ দায়ের করিতেছি যে, বৌলতলী ইউপির চেয়ারম্যান সুকান্ত বিশ্বাস, উপজেলা পরিষদ ও এম.পি মহোদয়ের নিকট থেকে যে বরাদ্দ পেয়েছে এবং তার পিতা সন্তোষ কুমার বিশ্বাস, জেলা পরিষদ থেকে যে বরাদ্দ পেয়েছে, সেই প্রকল্পের কাজ গুলো সঠিক ভাবে না করে, লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছে। যা তদন্ত করলে প্রমান পাওয়া যাবে। লিখিত অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন, সরকারি টাকা যদি এইভাবে আত্মসাৎ করে তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের ডিজিটাল বাংলাদেশ কিভাবে বাস্তবায়ন হবে।

এলাকাবাসীর লিখিত অভিযোগের সূত্র ধরে আমাদের প্রতিনিধি সরেজমিন প্রকল্প গুলো পরিদর্শন করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ার কথা জানিয়েছে। এসকল অভিযোগের বিষয়ে বৌলতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুকান্ত বিশ্বাস ও তার পিতা জেলা পরিষদ সদস্য সন্তোষ কুমার বিশ্বাস বলেন, এলাকার একটি বিরোধী পক্ষ আমাদের কে নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

দক্ষিণ বাংলা ডটকম এর জন্য সারাদেশে সংবাদ দাতা নিয়োগ চলছে
যোগাযোগঃ- ০১৭১১১০২৪৭২, news@dokhinbangla.com




এই ক্যাটাগরির আর নিউজ




Salat Times

    Dhaka, Bangladesh
    মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২১
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৪২
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৫৭
    যোহরদুপুর ১১:৪৩
    আছরবিকাল ৩:০২
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:২৯
    এশা রাত ৬:৪৫




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দক্ষিণ বাংলা:-2018-2021
সারাদেশের সংবাদ দাতা নিয়োগ চলছে ০১৭১১১০২৪৭২
themesba-lates1749691102
বাংলা English