সর্বশেষ খবর
বাংলাদেশ, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩

প্রেম করে স্কুলছাত্রীকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণ

ডেস্ক রিপোর্ট
দক্ষিণ বাংলা শুক্রবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে সৎ বাবা কারাগারে

প্রেমিকের আহ্বানে সাড়া দিতে গিয়ে নড়াইলের কালিয়ায় নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার উথলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মারাত্মক আহত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে প্রথমে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে কালিয়া থানায় ৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ প্রতারক প্রেমিকসহ ২ জনকে আটক করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ওই ছাত্রীর সঙ্গে উথলী গ্রামের ইউছুফ শেখের ছেলে বখাটে মিশান শেখের কিছু দিন আগে থেকেই প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেই সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে প্রেমিক মিশান তাকে ফোন করে বাড়ির পাশের মাঠে ডেকে নিয়ে যায়।

সেখানে মুখ বেঁধে তাকে গণধর্ষণ করে ধর্ষকরা পলিয়ে যায়। মারাত্মক আহত অবস্থায় পরিবারের লোকজন তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন। পরে কালিয়া থানা পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে প্রতারক প্রেমিক মিশান শেখ (১৮) ও একই গ্রামের রবিউল শিকদারের ছেলে বাপ্পি শিকদারকে (১৯) আটক করে।

গণধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৩ জনকে আসামি করে কালিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

কালিয়া থানার ওসি শেখ কনি মিয়া বলেন, আটক ২ জনকে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। পলাতক আসামিদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে। ওই ছাত্রীকে উন্নত চিকিৎসাসহ ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আরো নিউজ