ফেসবুক চালাতে বাধা দেয়ায় তরুণীর কাণ্ড

ডেস্ক রিপোর্ট
দক্ষিণ বাংলা শনিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২১
নববধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ শেষে বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে এলো

মাদারীপুরের কালকিনিতে ফেসবুক চালাতে বাধা প্রদান করায় তনু (১৮) নামে এক তরুণী অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তরুণী উপজেলার রমজানপুর এলাকার উত্তর চড়াইকান্দি গ্রামের সঙ্করের মেয়ে।পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানা গেছে, বাড়ির সব কাজকর্ম বাদ দিয়ে শনিবার সকাল থেকে তনু তার মোবাইল দিয়ে ফেসবুকে চালাতে থাকে। এ বিষয়টি দেখে তনুর বাবা তাকে ফেসবুক চালাতে বাধা প্রদান করে এবং তার হাত থেকে মোবাইলটি নিয়ে যায় তার বাবা সঙ্কর।

এতে তনু অভিমান করে নিজ ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে খবর পেয়ে কালকিনি থানা পুলিশ নিহত তনুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. নাছিরউদ্দিন মৃধা বলেন, আমরা খবর পেয়ে নিহতের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছি। মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে।


আরো নিউজ