দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর বঙ্গোপসাগরে ফুঁসছে ঘূর্ণিঝড় গুলাব, আঘাত হানবে কোথায় - দক্ষিণ বাংলা বঙ্গোপসাগরে ফুঁসছে ঘূর্ণিঝড় গুলাব, আঘাত হানবে কোথায় - দক্ষিণ বাংলা
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫২ পূর্বাহ্ন

বঙ্গোপসাগরে ফুঁসছে ঘূর্ণিঝড় গুলাব, আঘাত হানবে কোথায়

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
বঙ্গোপসাগরে ফুঁসছে ঘূর্ণিঝড় গুলাব, আঘাত হানবে কোথায় (লাইভ দেখুন)

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট একটি গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে যাচ্ছে বলে সতর্ক করে দিয়েছে ভারতের আবহাওয়া দফতর। এ সংক্রান্ত আবহাওয়া বুলেটিনে ভারতের আবহাওয়া দফতর বলেছে, শনিবারের মধ্যে নিম্নচাপটির ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ঘূর্ণিঝড়টি রোববার রাতের দিকে অন্ধ্র প্রদেশের উত্তরাঞ্চল এবং উড়িষ্যার দক্ষিণাঞ্চল অতিক্রম করবে।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম রাখা হয়েছে গুলাব। পাকিস্তান এই নামকরণ করেছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা স্থলভাগে আছড়ে পড়তে পারে। ইতোমধ্যে উড়িষ্যা ও অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে পশ্চিমবঙ্গেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

ই মূহূর্তে উত্তর-মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে অতি-গভীর নিম্নচাপ। তা ক্রমেই উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হওয়ার কথা রয়েছে। ভারতের আবহাওয়া বিভাগ মৌসুম ভবন জানিয়েছে, আগামী ১২ ঘণ্টায় এই অতি গভীর নিম্নচাপ আরও শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। তারপর রোববার উড়িষ্যার দক্ষিণে ব্রহ্মপুর এবং অন্ধ্রপ্রদেশের উত্তরে বিশাখাপত্তনমের মাঝ বরাবর কলিঙ্গপত্তনমের ওপর দিয়ে স্থলভাগ অতিক্রম করবে সেটি।

মৌসুম ভবন বলছে, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উড়িষ্যা ও অন্ধ্র উপকূলে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টি হতে পারে পশ্চিমবঙ্গেও। বিশেষ করে উপকূলবর্তী জেলা অর্থাৎ দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া উত্তর ২৪ পরগনা, কলকাতা, হাওড়া ও হুগলিতেও রোববার থেকেই হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। সোমবার দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী বৃষ্টির সতর্কবার্তা জারি হয়েছে।

কলকাতায় বৃষ্টি বাড়বে মঙ্গলবার থেকে। সে দিন শহরে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শুধু কলকাতা নয়, মঙ্গলবার থেকে দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম-সহ দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই ভারী বৃষ্টি হবে বলেই জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

এই ঝড়ের তাণ্ডব মোকাবিলায় ইতোমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের উপকূল এলাকায় ১৫টি ও কলকাতার জন্য ৪টি দল মোতায়েন করেছে দেশটির জাতীয় দুর্যোগ মোকাবিলা দফতর। গভীর নিম্নচাপের কারণে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে এক নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সঙ্কেত দেখিয়ে যেতে বলেছে।

বর্তমানে গভীর নিম্নচাপটি চট্টগ্রাম থেকে ৪৮০ কিলোমিটার, কক্সবাজার থেকে ৪১৫ কিলোমিটার এবং ভারতের উড়িষ্যা উপকূল থেকে ৫১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। এর আগে বঙ্গোপসাগরে সবশেষ যে ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হয়েছিল, সেটির নাম ইয়াস। গত মে মাসে এটি ভারতের উড়িষ্যায় আঘাত হেনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছিল।

দক্ষিণ বাংলা ডটকম এর জন্য সারাদেশে সংবাদ দাতা নিয়োগ চলছে
যোগাযোগঃ- ০১৭১১১০২৪৭২, news@dokhinbangla.com




এই ক্যাটাগরির আর নিউজ




Salat Times

    Dhaka, Bangladesh
    মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২১
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:৪২
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৫৭
    যোহরদুপুর ১১:৪৩
    আছরবিকাল ৩:০২
    মাগরিবসন্ধ্যা ৫:২৯
    এশা রাত ৬:৪৫




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দক্ষিণ বাংলা:-2018-2021
সারাদেশের সংবাদ দাতা নিয়োগ চলছে ০১৭১১১০২৪৭২
themesba-lates1749691102
বাংলা English