বরিশাল নগরীতে ভূমি দস্যুরা বেপরোয়া : জমির বৈধ মালিক সার্ভেয়ার মোতালেবসহ এলাকাবাসীর মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার
দক্ষিণ বাংলা মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২২
বরিশাল নগরীতে ভূমি দস্যুরা বেপরোয়া

বরিশাল নগরীতে ভূমি দস্যুরা বে পরোয়া। জমির বৈধ মালিকদের বিরুদ্ধে মামলা,অভিযোগ, মানববন্ধন ও কতিপয় গনমাধ্যমকে ব্যবহার করে হয়রানী করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। এসব ভূমি দস্যুদের কুট কৌশলে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে নিরীহ মানুষ। অপর দিকে চক্রটি ভুয়া জাল জালিয়াতির মাধ্যমে কাগজ সৃষ্টি করে বৈধ বলে ঘোষনা দেয়ার ফলে জমির প্রকৃত মালিকরা পরেছে বিপদে। ভুমি দস্যুরাই জমির বৈধ মালিকদের ভুয়া ও ভুমি দস্যু বানাতে ব্যস্ত। ভুমি দস্যুদের বিরুদ্ধ প্রকৃত মালিকরা এবার রুখে দাড়িয়েছে। আদালতের নির্দেশ অমান্য করে তারা একেরপর এক ষড়যন্ত্রের জাল বিস্তার করছে। নগরীতে তিনটি ভুমি দস্যুদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট প্রমান রয়েছে। রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা।বরিশাল নগরীর বগুড়া আলেকান্দা মৌজায় এম এ মোতালেব’র জমিতে একটি ভুমি দস্যু গ্রুপ জাল জালিয়াতির মাধ্যমে ভুয়া কাগজপত্র সৃষ্টি করে দখলে নেয়ার ব্যর্থ চেস্টা করে ফেঁসে গেছে সৈয়দ সাবের হোসেন বাবু,আবুল খায়ের, বরকত ও সৈয়দ ইসমত সায়লা ।

সৈয়দ সাবের হোসেন বাবুর বিরুদ্ধে জালজালিয়াতির বিরুদ্ধে সুলতান হোসেন খান মামলা করেন যার নং সি আর ১০৫৫/১৭,এম এ মোতালেব এর মামলা নং জি আআর ৩৯০ ও সি আআর ২৬০/১৮ এছাড়া একই অভিযোগে মামলা করেন হাবিবুল্লাহ যার নং ৭৪০/১৮। একই ব্যাপারে আলতাব হোসেনসহ। রাজাপুরের দলিল ২৩/৬৩ (৫৪ ) ধারার কেস জাল জালিয়াতি বাবে সৃষ্টি করায় ৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/৪২০ ধারার অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমানিত হওয়ায় পিবিআই তদন্ত রিপোর্ট আদালতে দাখিল করেছে। অপরদিকে সৈয়দ আবুল খায়ের তার মেয়ে সৈয়দ ইসমত সায়লাকে দশ শতাংশ জমি দলিল করে দেয়। জমি তার ভাই আবুল বরকত বুজিয়ে না দিলে একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ নিয়ে এম এ মোতালেবের জমি দখলের চেস্টা করে এ ব্যাপারে এম এ মোতালেব আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন যার নং ১৩২/২২। ভুমি দস্যুদের নানান ষড়যন্ত্র হয়রানীর শিকার হচ্ছে জমির বৈধ দখলকার মালিক এম এ মোতালেব।

এ দিকে ইসমত সায়লা এক জমি দেখিয়ে অন্য জমি কাজী সফিকুল আলমের কাছে ৩১ শতাংশ জমি বিরা নব্বই লাখ টাকায় বিক্রি করেছে। এখনো ইসমত শায়লা ও জাহিদ হোসেন ওরফে সুরুজ মোল্লা জমি বুঝিয়ে না দিয়ে হয়রানীর কারনে শফিকুল আলম দু বার লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করেছেন।সৈয়দ আবুল খায়ের ও ইসমত সায়লা এম এ মোতালের বৈধ জমি মসজিদে দান করে মসজিদ নির্মান করেন। এম এ মোতালেবের বৈধ জমি দখলের চেস্টা করে ব্যর্থ হয়ে এম এ মোতালেবের নামে অপপ্রচার কনে আসছে ভুমি দস্যু গ্রুপটি। এদিকে কুখ্যাত ভুমি দস্যু বাটপার আবদুল কাদের ভুয়া কাগজ সৃস্টি করে এম এ মোতালেবের জমি বিক্রির জন্য দলিল করার সময় সাব রেজিষ্টার কাগজপত্র ভুয়া দেখে আব্দুল কাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনায় এম এ মোতালেব আব্দুল কাদেরসহ জাল জালিয়াতকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং জি আর ৪৯৪/২১ ।

জমির বৈধ মালিক এম এ মোতালেবের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও হয়রানীর বিরুদ্ধে সাধারন মানুষ বরিশাল নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধনে বক্তারা ভুমি দস্যুদের গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়েছে। বক্তারা বলেন এম এ মোতালেব জমির বৈধ মালিক। জমি এম এ মোতালেবের দখলে অথচ ভুমি দস্যুরা এম এ মোতালেবের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে আসছে। অপপ্রচারের তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এম এ মোতালেব প্রশাসন,গনমাধ্যমের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলেন আমি ভুমি দস্যুদের মুখোশ উম্মোচনের জন্য সকলের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। একই সাথে ঐ ভুমিদস্যুদের দস্যুতা ও হয়রানী থেকে বাঁচতে চাই।


আরো নিউজ