দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর দক্ষিণ বাংলা - দক্ষিনের জনপদের খবর মুক্তিপণের দাবিতে দুই শিশুকে অপহরণের পর হত্যা, গ্রেফতার ২ - দক্ষিণ বাংলা মুক্তিপণের দাবিতে দুই শিশুকে অপহরণের পর হত্যা, গ্রেফতার ২ - দক্ষিণ বাংলা
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১২:২৩ অপরাহ্ন

মুক্তিপণের দাবিতে দুই শিশুকে অপহরণের পর হত্যা, গ্রেফতার ২

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিতঃ রবিবার, ২১ মার্চ, ২০২১
  • ২৫ জন নিউজটি পড়েছেন
মুক্তিপণের দাবিতে দুই শিশুকে অপহরণের পর হত্যা, গ্রেফতার ২

গাজীপুরে মুক্তিপণের দাবিতে দুই শিশুকে অপহরণের পর হত্যা করেছে অপহরণকারীরা। পুলিশ এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করলেও আরেক শিশুর এখনও সন্ধান মেলেনি।

তবে এ ঘটনায় গ্রেফতার দুই আসামি জানিয়েছে- ওই শিশুকেও হত্যা করে তারা তুরাগের শাখা বালু নদীতে ফেলে দিয়েছে। আসামিদের দেয়া তথ্যে পুলিশ নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধারে তৎপরতা চালাচ্ছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- শরীয়তপুরে ভেদরগঞ্জ থানার পুটিয়া এলাকার মৃত আলী জব্বারের ছেলে আলী আকবর (২৪) ও গাজীপুর মহানগরের দক্ষিণ খাইলকুর এলাকার মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৩০)। এর মধ্যে আকবর মহানগরের হায়দরাবাদ এলাকায় ভাড়া থাকতেন।

রোববার (২১ মার্চ) বিকেলে গাজীপুরের গাছা থানায় প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গাছা থানার উপ-পরিদর্শক এসআই উৎপল কুমার সাহা জানান, গত ২০ ফেব্রুয়ারি বেলা সোয়া ১১টার দিকে তিন বছরের শিশু নিহাদ নিখোঁজ হয়। তার মা নার্গিস সততা মিনি সোয়েটার নামের একটি সাব-কন্ট্রাক কারখানায় চাকরি করেন। ঘটনার সময় নিহাদ ওই কারখানার গেটে খেলা করছিল। এ ঘটনায় অপহৃত শিশুর বাবা হানিফ আলী গাছা থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর শিশুটিকে উদ্ধারে অভিযানে নামে পুলিশ। ঘটনাস্থলের সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে অপহরনকারীকে দেখা গেলেও তাকে শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। অপহরণের তিনদিন পর ২৩ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর শ্যামপুর থানাধীন করিমুল্লাবাগ এলাকায় নাসির উদ্দিন নাসুর তিনতালা বিল্ডিংয়ের পানির ট্যাংকির ভেতর থেকে নিহাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এসআই উৎপল আরও জানান, ৯ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টায় পূর্ব কলমেশ্বর অ্যারাইভ্যাল গার্মেন্টসের পেছন থেকে সুমাইয়া আক্তার সুমু ওরফে রুবা নামে দুই বছর ৮ মাস বয়সী আরেক শিশুকে অপহরণ করা হয়। অপহরণকারীরা শিশু রুবার বাবার কাছে মোবাইলে ৫ লাখ টাকার মুক্তিপণ দাবি করে। এ ঘটনায়ও গাছা থানায় পৃথক আরেকটি মামলা হয়। এ দুটি অপহরণের ঘটনায় পুলিশ আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে গত ১৭ মার্চ অপহরণকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য আকবরকে আটক করে। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে আকবরের খালাতো ভাই আনোয়ারকে আটক করা হয়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ জানান, ওই দুজনকে আটকের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা অপহরণে যুক্ত থাকার কথা স্বীকার করেন। পরে তাদেরকে অপহরণ মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালত তাদের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডে আসামিরা দুই শিশুকে অপহরণ ও হত্যার দায় স্বীকার করে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, আনোয়ার ও আকবর জানিয়েছে- তারা রুবাকে হত্যা করে বস্তায় ভরে বালু নদীতে ফেলে দিয়েছে। আরেক শিশু নিহাদকে হত্যার বর্ণনাও দেয়। তারা দুই শিশু জামা-কাপড়ের সন্ধান দেয়। তারা মুক্তিপণ আদায়ের জন্যই অপহরণ করেছিল। তা না পেয়ে শিশুদের হত্যা করেছে।

গাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইসমাইল হোসেন জানান, তারা এখনও শিশু রুবার মরদেহের সন্ধান পাননি। মরদেহ উদ্ধারে দমকল বাহিনীর সহযোগিতায় বালু নদীতে তল্লাশি চলছে।




নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আর নিউজ




Salat Times

    Dhaka, Bangladesh
    রবিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২১
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৪:১৭
    সূর্যোদয়ভোর ৫:৩৫
    যোহরদুপুর ১১:৫৮
    আছরবিকাল ৩:২৫
    মাগরিবসন্ধ্যা ৬:২১
    এশা রাত ৭:৩৯




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত 2018-2020
সারাদেশের সংবাদ দাতা নিয়োগ চলছে ০১৭১১১০২৪৭২
themesba-lates1749691102
বাংলা English