সর্বশেষ খবর
বাংলাদেশ, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩

শিল্প ও উৎপাদন প্রক্রিয়ায় নারীর অংশগ্রহণ বাড়ানোর তাগিদ

ডেস্ক রিপোর্ট
দক্ষিণ বাংলা শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
শিল্প ও উৎপাদন প্রক্রিয়ায় নারীর অংশগ্রহণ বাড়ানোর তাগিদ

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, নারীকে তার কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে চাকরির পাশাপাশি শিল্প উদ্যোক্তা হতে হবে। শিল্প ও উৎপাদন প্রক্রিয়ায় নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উন্নয়নে নারী উদ্যোক্তাদের সামনে এগিয়ে আসতে হবে।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর হোটেল রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে কুসুমকলি সু ফ্যাক্টরির উদ্যোগে নতুন পণ্যের মোড়ক উন্মোচন ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. মফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) চেয়ারম্যান মো. মোশতাক হাসান এনডিসি এবং ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক মুহাম্মদ মুনিরুল মাওলা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কুসুমকলি সু ফ্যাক্টরির স্বত্বাধিকারী নাজমা খাতুন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘নতুন জাতীয় শিল্পনীতি-২০২১ প্রণয়নের কাজ চলছে। নতুন এ শিল্পনীতিতে সরকার নারী শিল্প উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে সর্বাধিক সুযোগ সুবিধা দেয়ার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করছে। বিদেশি ব্র্যান্ডগুলোর ভিড়ে দেশীয় চামড়া শিল্প ব্র্যান্ডগুলো নিজের চেষ্টায় জায়গা করে নিচ্ছে। কুসুমকলি সু ফ্যাক্টরির মতো ক্ষুদ্র ও মাঝারি চামড়া শিল্প উদ্যোক্তা নিজেরদের চেষ্টায় দেশে চামড়া শিল্প উন্নয়নে অবদান রেখে চলছে।’

‘বর্তমান সরকার দেশে শিল্প উদ্যোক্তা সৃষ্টি লক্ষ্যে উদ্যোক্তা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ, ঋণ প্রদান, প্রণোদনা প্যাকেজ প্রদানসহ সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি প্রদান কার্যক্রম চলমান রেখেছে।’

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিসিক চেয়ারম্যান বলেন, ‘২০৪১ সালে শিল্পোন্নত বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে বিসিক একটি মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করছে। যা বাস্তবায়িত হলে দেশে শিল্প বিল্পব ঘটবে এবং বাংলাদেশ একটি সুখী-সমৃদ্ধ রাষ্ট্রে পরিণত হবে।’


আরো নিউজ